ভিপিএন কি? কিভাবে ব্যবহার করবেন? Best Tips 2023

ভিপিএন কি?

ভিপিএন (VPN) হলো Virtual Private Network। ভিপিএন মূলত ইউজারের আইপি এড্রেস লুকাতে ব্যবহার করা যায়। ভিপিএন ব্যবহার করে আপনি চাইলে যেকোনো দেশের আইপি ব্যবহার করতে পারেন। যেমন আপনি বাংলাদেশে বসেই আমেরিকার আইপি এড্রেস ব্যবহার করতে পারেন। ভিপিএন মূলত ইউজার এবং ওয়েবসাইট এর মধ্যে একটা থার্ড পার্টি হিসেবে কাজ করে।

ভিপিএন নিয়ে আমাদের মধ্যে একটা ভুল ধারণা আছে। আমরা মনে করি ভিপিএন শুধু অনৈতিক কাজেই ব্যবহার করা হয়। আসলে বিষয়টা এমন না। ভিপিএন তৈরি করা হয়েছে ইউজারদের আইপি এড্রেস, লোকেশন হাইড করার। যেনো ইউজারগণ তাদের পরিচয় গোপন রেখে কাজ করতে পারে।

ভিপিএন সাধারণত ব্লকড ওয়েবসাইটগুলোতে ভিজিট করতে ব্যবহার করা হয়। যেমন ধরুন বাংলাদেশ থেকে Darkweb এর ওয়েবসাইট গুলো ভিজিট করা যায়না। তখন আপনি ভিপিএন ব্যবহার করে সেই ওয়েবসাইট গুলো ভিজিট করতে পারবেন। তাছাড়াও বর্তমানে বাংলাদেশে পাবজি, ফ্রিফায়ার গেমগুলো ব্যান। যার ফলে গেমারসরা ভিপিএন ব্যবহার করে গেমসগুলো খেলতে পারছে। ভিপিএন ২ প্রকারের পাওয়া যায়।

১. ফ্রি ভিপিএনঃ যেটা ব্যবহার করতে কোনো টাকা পয়সা দিতে হয়না। সম্পূর্ণ ফ্রিতেই ব্যবহার করা যায়। প্লেস্টোরে এমন অনেক ফ্রী ভিপিএন রয়েছে। তাদের মধ্যে জনপ্রিয় কয়েকটি হলো Super VPN, Turbo VPN, Secure VPN, 1.1.1.1 ইত্যাদি। তবে এগুলাতে সার্ভার লিমিট করা থাকে এবং বেশিরভাগ ফ্রি ভিপিএন ব্যবহার করার জন্য এডস দেখতে হয়।

২. পেইড ভিপিএনঃ এই ভিপিএন গুলো ব্যবহার করতে টাকা লাগে। কিছু কিছু ভিপিএনে একবার টাকা দিয়ে কিনলেই লাইফটাইম ব্যবহার করা যায়। আবার কিছু কিছু ভিপিএন সাবস্ক্রিপশন আকারে, মাসিক বা বাৎসরিক ভাবে পে করতে হয়। পেইড ভিপিএন গুলোতে কোনো সার্ভার লিমিট করা থাকে না। ফলে ইচ্ছামতো যেকোনো কান্ট্রি সিলেক্ট করে কানেক্ট করা যায়। পেইড ভিপিএন গুলো ফ্রি ভিপিএন এর তুলনায় অনেক বেটার সার্ভিস দেয়। বিশেষ করে ইউজারদের আইপি এড্রেস খুব ভালোভাবে হাইড করে দেয়। যেটা ফ্রি ভিপিএন গুলো পারে না। আবার পেইড ভিপিএন গুলো সম্পূর্ণ এডস ফ্রি। জনপ্রিয় কয়েকটি পেইড ভিপিএন হলো Express VPN, Nord VPN, Panda VPN, HMA VPN ইত্যাদি।

কিভাবে ভিপিএন ব্যবহার করবেন?

ভিপিএন ব্যবহার করার আগে অবশ্যই আপনার পছন্দমত ভিপিএন ডাউনলোড করে ইন্সটল করে নিতে হবে। আপনি চাইলে আপনার পছন্দ মতো ফ্রি অথবা পেইড ভিপিএন ব্যবহার করতে পারেন। এরপর ভিপিএন এপসটিতে প্রবেশ করুন। দেখতে পাবেন এখানে আপনার সার্ভার সিলেকশনের অপশন রয়েছে।

আপনি চাইলে আপনার পছন্দমত সার্ভার সিলেক্ট করে নিতে পারেন অথবা আপনি অটো সার্ভার দিয়েও রাখতে পারেন। এরপর Connect অপশনে ক্লিক করবেন। প্রথমবার ভিপিএন কানেক্ট দেওয়ার সময় পারমিশন চাইতে পারে, সেটা দিয়ে দিবেন। ব্যাস আপনার ভিপিএন কানেক্ট হয়ে গেছে। এখন চাইলে আপনি আপনার কাজটি করতে পারেন।

কিভাবে বুঝবেন আপনার ভিপিএন কানেক্ট হইসে কিনা?

ভিপিএন কানেক্ট করার সাথে সাথেই কানেক্টেড (Connected) লেখা উঠবে। আপনার মোবাইলের নোটিফিকেশন বারেও সেটা শো করবে। তখনই বুঝে নিবেন আপনার ভিপিএন টি কানেক্ট হয়ে গেছে। কিন্তু এখন দেখার বিষয় হলো যে আপনার আইপি অ্যাড্রেস চেঞ্জ হয়েছে কিনা!

এর জন্য আপনাকে একটা ওয়েবসাইটে যেতে হবে। ওয়েবসাইটটি হলো https://whoer.net এই ওয়েবসাইটে গেলে আপনার আইপি এড্রেস সম্পর্কে সকল তথ্য চলে আসবে। আপনার Intenet Provider, Operating System, Browser, DNS ইত্যাদি। এখানে আপনার DNS এ খেয়াল করবেন আপনাকে আপনার দেশ দেখাচ্ছে! আপনাকে যদি বাংলাদেশ দেখায় তাহলে বুঝতে পারবেন আপনার ভিপিএন টি সঠিকভাবে কানেক্ট হয়নি। আর যদি আপনার কানেক্টকৃত দেশটি দেখায় তাহলে বুঝবেন আপনার ভিপিএন টি সঠিকভাবে কাজ করছে।

ভিপিএন

ভিপিএন ব্যবহারের সুবিধা

১. ভিপিএন ব্যবহার করে খুব সহজেই নিজের আইপি অ্যাড্রেস এবং লোকেশন লুকিয়ে ফেলা যায়।

২. ভিপিএন আপনার ডাটা ইনক্রিপ্ট করে রাখে, ফলে আপনার ডাটাগুলো আর হ্যাকারদের হাতে চলে যায় না।

৩. ব্যান ওয়েবসাইটগুলোতে প্রবেশ করা যায়। এমন অনেক প্রয়োজনীয় ওয়েবসাইটগুলো থাকে যেগুলো ভৌগোলিক কারণে আমাদের সাধারণ আইপি অ্যাড্রেস দিয়ে ঢোকা যায় না। তখন ভিপিএন ব্যবহার করে খুব সহজে সে ওয়েবসাইটগুলোতে ভিজিট করতে পারবেন।

ভিপিএন ব্যবহারের অসুবিধা

১. ভিপিএন ব্যবহারের সময় আপনার ব্রাউজিং স্পিড কমে যায়।

২. ডিভাইস অনেক ভারী হয়ে যায়। যার ফলে হিটিং ইসুও দেখা দেয়।

৩. কিছু কিছু ভিপিএন আবার ইউজারদের ডাটাও চুরি করে থাকে।

৪. ফ্রি ভিপিএন ব্যবহার করার সময় এডস দেখতে হয় যেটা খুবই প্যারা দায়ক। ভিপিএন এর ভালো খারাপ দুটো দিকই আছে। আপনি ব্যবহার করবেন কিনা বাকিটা আপনার ইচ্ছা।

 

আশা করি আপনাদের আর্টিকেলটি ভালো লেগেছে। এমন নতুন নতুন আর্টিকেল পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

 

আরও পড়ুন,

ইন্টারনেট কি? ইন্টারনেটের ব্যবহার!

এসএসসি রেজাল্ট দেখার নিয়ম

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *